দিনাজপুরনিউজ২৪ ডটকমের ব্লগসাইটে আপনাকে স্বাগতম!

স্বাস্থ্য কথা

প্রকাশঃ ০৩ মার্চ, ২০১৯

স্বাস্থ্য কথা

চোখের রং বদলায় যে খাবার

গবেষকদের মতে, চোখ হচ্ছে শরীর, স্বাস্থ্য ও মনের চাবিকাঠি। চোখ নিয়ে যত কথা, এর কেন্দ্রবিন্দু মণির রং। কারও চোখের মণি কাজলকালো, কারও মণি বাদামি, কারওবা নীলাভ। অনেকে আবার মণির রং বদলাতে কৃত্রিম লেন্সও পরেন। তবে চোখের মণির রং কী হবে, তা অনেকটা জিন বা বংশগত বিষয়ের ওপর নির্ভর করে।

শিশুর বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চোখের মণির রং বদলায়। সাধারণত তিনটি জিন মণির রঙে প্রভাব ফেলে। এর মধ্যে দুটি জিন সহজে শনাক্ত করা যায়। চোখের তারার আকার পরিবেশের ওপর অনেকটা নির্ভর করে। বেশি আলোতে চোখের তারা বড় হয়ে যায়। তখন তারার আশপাশের কোষগুলো এর সঙ্গে সামঞ্জস্য আনে। এতে চোখের রং বদলায়। তবে এই রংবদল হঠাৎ করে চোখে পড়ে না। দীর্ঘদিনের খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন আসতে পারে। বিশেষ কয়েকটি খাবার চোখের মণির ঔজ্জ্বল্য বা রঙে প্রভাব ফেলে। এসব খাবার খেলে হঠাৎ করে কোনো পরিবর্তন আসবে না। এ জন্য দীর্ঘদিন ধরে খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলা জরুরি।

চোখের মণির রং বদলে যে কয়েকটি খাবার প্রভাব ফেলে, সেগুলো হলো:

চা
বিশেষ ধরনের দুটি চা চোখের মণির রঙে প্রভাব ফেলে। এগুলো হলো উভা উরসি ও চামোলি চা-পাতা। এতে চোখের পেশিগুলো শিথিল হয়। চোখ আরাম পায়। এই চা নিয়মিত পান করলে চোখে একধরনের ঔজ্জ্বল্য আসে। শুধু তা-ই নয়, চর্মরোগ ও আর্থ্রাইটিস বা বাতজনিত রোগের জন্য এই চা বিশেষ উপকারী।

মধু
মধু শরীরে চিনির চাহিদা মেটায়। মধু খেলে চোখের মণিতে একধরনের চাকচিক্য আসে। তবে সেটি অবশ্যই ভালো মধু হতে হবে।

পালং শাক
পালং শাক নিয়মিত খেলে চোখ সতেজ থাকে। চোখের ক্লান্তিভাব দূর করতেও এর জুড়ি নেই। এই শাকে ম্যাগনেশিয়াম, পটাশিয়াম, ভিটামিন, লৌহ আছে। ফলে এই শাক খেলে শরীরের অন্যান্য পুষ্টিও মেটে।

মাছ
ভিটামিন বি, সি, এ, ডি ও ই-এর অন্যতম উৎস হলো মাছ। বিশেষ করে সামুদ্রিক মাছে প্রচুর ভিটামিন ও মিনারেল থাকে। নিয়মিত মাছ খেলে চোখ ভালো থাকে। এটিও চোখ সতেজ রাখে।

জলপাইয়ের তেল
জলপাইয়ের তেল চোখকে আরও সুন্দর করে তোলে। এই তেলে চোখ নমনীয় থাকে। চোখের তারা কালো হয়। স্নিগ্ধতাও বাড়ে। চোখের ক্লান্তিও দূর হয় এই তেলে।

পেঁয়াজ 
পেঁয়াজে ভিটামিন সি ভরা। তাই ত্বক ও চুল ভালো থাকে। পেঁয়াজ অনিদ্রা কমায়। ফলে চোখ ভালো থাকে।

বাদাম
বাদামের তেল ও বাদাম-জাতীয় খাবার দীর্ঘদিন খেলে চোখের মণির রং হালকা হয়ে যায়। যাঁরা চোখ ধূসর করতে চান, তাঁরা নিয়মিত বাদাম খেতে পারেন।

মাংস 
মাংসে অনেক ধরনের মিনারেল, ম্যাগনেশিয়াম ও জিংক থাকে। এটিও চোখের তারার রং বদলাতে পারে। মাংস আমিষের উৎস। এতে চোখ অনেক বেশি সুস্থ ও সবল থাকে।

আদা
নিয়মিত আদা খেলে চোখের মণির রঙে বদল আসে। আদায় মলাশয়ের ক্যানসার দূর হয়। শুধু তা-ই নয়, মাংসপেশির ব্যথা, জরায়ুর ক্যানসারও নিরাময় হয়।

ব্লগার Najmun Nahar Nipa এর অন্যান্য পোস্টঃ
আপনার পছন্দের তালিকায় আরও থাকতে পারেঃ
0 মন্তব্য
আপনার মতামত দিন
বাংলা বর্ণমালার তৃতীয় বর্ণ কোনটিঃ
Hit enter to search or ESC to close
হ্যালো, আমার নাম

Najmun Nahar Nipa

Graphics Designer