দিনাজপুরনিউজ২৪ ডটকমের ব্লগসাইটে আপনাকে স্বাগতম!

অপরাধ ও দুর্নীতি

প্রকাশঃ ০৬ জুলাই, ২০১৯

অপরাধ ও দুর্নীতি

ঘোড়াঘাট থানার দুই এসআই সাইফুলের বিরুদ্ধে ১০বছরের শিশু কন্যাকে রাতদুপুরে ঘরে ঢুকে গালমন্দ করবার এবং নিরঅপরাধ যুবককে মারধর করে ৮৫,৫০০ টাকা সহ ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ!!

এসআই সাইফুল (1 এবং 2 ) নামের আতঙ্কে ঘোড়াঘাট থানার সাধারন জনগন! মামলা ছাড়াই রাতদুপুরে দরজায় লাথিমারা সহ মারধর করে টাকা কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ! তদন্তে নেমেছেন পুলিশ পরির্দশক-ডিএনপিএস-২ ।

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট থানায় কর্মরত এসআই সাইফুল ( 1 এবং 2 ) নামের দুইজনের আতঙ্কে ভুগছে ঘোড়াঘাট উপজেলার জনগন! মামলা ছাড়াই রাতদুপুরে সাধারন জনতার বাসায় গিয়ে লাথি মারা সহ ঘরে ঢুকে নির অপরাধ যুবক কে মারধর করে বাড়িতে থাকা সর্বমোট ৮৫,৫০০ টাকা  সহ নিত্য প্রয়োজনী জিনিস পত্র নিয়ে যাবার অভিযোগ উঠেছে এসআই সাইফুল-2 এর বিরুদ্ধে অপরদিকে একই বাসায় গিয়ে দরজায় লাথি মারা সহ বাড়িতে একাই থাকা ১০ বছরের শিশু কন্যাকে গালমন্দ করবার অভিযোগ উঠেছে সাইফুল-1 এর বিরুদ্ধে। অভিযোগ কারীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ১৯/০৬/১৯ ইং তারিখে অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক(নিঃ) মোঃ শাহ নেওয়াজ (ডিএনপিএস-২) পুলিশ হেডকোয়াটার্স ঢাকা ইতি মধ্যে ঘোড়াঘাট থানায় হাজির হইয়া অনুসন্ধান করিয়াছেন। পুলিশ হেড কোয়াটার্স এর কর্মকর্তা দারা এমন অনুসন্ধানের কারনে জনমনে সুস্থি ফিরলেও এখনো কনো পরির্বতন আসেনি এসআই সাইফুল নামক দুই পুলিশ সদস্যের চলাফেরায় যেনো তারা আরো কর্কষ আচরন শুরু করেছেন তারা এমন কি শুরু করেছেন বিচারের নামে থানায় আদালত বসিয়ে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার পন্থা। তারা দুইজন পুলিশি সেবায় প্রদান করে নয় নাম ছড়িয়েছেন ভয়ভীতি আর জনমনে আতঙ্কের জন্ম্যদিয়ে। করেই চলেছেন পুলিশের ইউনির্ফোম, পদ পদবী সহ ক্ষমতার অপব্যাহার! এই দুই পুলিশবাহীনির এসআই সাইফুল নামের অতঙ্ক থেকে মুক্তি চায় ঘোড়াঘাট বাসী। থাকতে চায় অতঙ্ক হীন অবস্থায় নিজ নিজ বাড়িতে পেতে চায় ডিজিটাল বাংলাদেশের আধুনিক পুলিশের সেবা। জনমনে সুস্থি ফিরিয়ে আনতে ১১-দিনাজপুর-৬ আসনের জনগনের অস্থাবান ও জনদরদী সাংসদ মোঃ শিবলী সাদিক সহ পুলিশবাহীনির উর্ধতন কর্মকর্তার নিকট উক্ত দুই এসআই সাইফুল ( 1-2) কে ঘোড়াঘাট থানা হতে অন্যত্র বদলী করনের মাধ্যমে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ বিষধ ভাবে ক্ষতিয়ে দেখতে জোর দাবী জানিয়েছেন এলাকার সচেতন সমাজের জনগন। এই থানায় থাকবার সুবাদে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগকারী এবং সংবাদ পরিবেশন কারী সাংবাদিক সহ সংশিষ্ট্যদের নানারকমের মিথ্যা মামলায় জরানো সহ সহপাঠিদের সহোযগিতায় করতে পারেন হয়রানী।

বিঃদ্রঃ(আরো বিস্তারিত সংবাদের জন্য সাথে থাকুন আমাদের)

ব্লগার md iftekhar ahmed এর অন্যান্য পোস্টঃ
আপনার পছন্দের তালিকায় আরও থাকতে পারেঃ
0 মন্তব্য
আপনার মতামত দিন
বাংলা বর্ণমালার পঞ্চমতম বর্ণ কোনটিঃ
Hit enter to search or ESC to close
হ্যালো, আমার নাম

md iftekhar ahmed