দিনাজপুরনিউজ২৪ ডটকমের ব্লগসাইটে আপনাকে স্বাগতম!

জীবনযাপন

প্রকাশঃ ০৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

জীবনযাপন

শহিদুল আলমের মুক্তি চেয়েছেন যুক্তরাজ্যের অর্ধশত শিল্পবোদ্ধা

কারাগারে বন্দী বিশিষ্ট আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের মুক্তি দাবি করেছেন যুক্তরাজ্যের সৃজনশীল অঙ্গনের অর্ধশত শিল্পবোদ্ধা। একই সঙ্গে ন্যায়বিচার ও তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বিষয়ে স্বচ্ছতার দাবি জানিয়েছেন।

লেখক, স্থপতি, ভাস্কর, জাদুঘরের পরিচালকসহ ব্রিটিশ শিল্পাঙ্গনের ৪৯ জন ব্যক্তিত্ব গতকাল রোববার পর্যন্ত শহিদুল আলমের মুক্তির দাবিতে এক খোলা চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন।

গত ৫ আগস্ট রাতে ধানমন্ডির বাসা থেকে শহিদুল আলমকে তুলে নেয় পুলিশের গোয়েন্দা শাখা ডিবি। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে ‘উসকানিমূলক মিথ্যা’ প্রচারের অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় গত ৬ আগস্ট শহিদুল আলমকে সাত দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। সাত দিনের রিমান্ড শেষে ১২ আগস্ট শহিদুলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন নিম্ন আদালত।

শহিদুল আলমের ভাগনি যুক্তরাজ্যে বসবাসরত সোফিয়া করিম ওই চিঠি লেখেন। সোফিয়া করিম নিজেও একজন স্থপতি। চিঠিতে শহিদুল আলমের অধিকার ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতার প্রতি শ্রদ্ধার আহ্বান জানানো হয়েছে।

চিঠিতে স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে আছেন লেখক চার্লি ব্রুকার, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নৃত্যশিল্পী ও কোরিওগ্রাফার আকরাম খান, হোয়াইটচাপেল গ্যালারির পরিচালক ইয়োনা ব্লেইজ উইক, শিল্পী ও ছবি নির্মাতা জন অ্যাকমপ্রাহ, ন্যাশনাল পোর্ট্রেট গ্যালারির পরিচালক নিকোলাস কিউলিনান, ব্রিটেনের জাতীয় চিত্রশালা টেইট মর্ডানের কিউরেটর ফ্রান্সিস মরিস, গেটসহেডের বাল্টিক সেন্টার ফর কনটেমপোরারি আর্টের ডিরেক্টর সারাহ মুনরো, ম্যাগনাম ফটোজের সোফি রাইট এবং ভাস্কর অ্যান্টনি গোর্মলি, অনীশ কাপুরসহ নামীদামি শিল্পবোদ্ধারা।

চিঠিতে বলা হয়, বাংলাদেশ নিজেকে গণতান্ত্রিক বলে পরিচয় দেয়, অথচ দেশটি শহিদুল আলমের অধিকার ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতার সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ। চিঠিতে শহিদুল আলমের মতো একই অভিযোগে আটক সব নাগরিকেরও মুক্তি দাবি করা হয়েছে।

শহিদুল আলমের সমর্থনে দেওয়া বার্তায় নিকোলাস কালিনান বলেন, ‘মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, শৈল্পিক প্রকাশ এবং ক্ষমতাবানের সামনে সত্য বলার মতো বিষয়গুলো সভ্যতার গুরুত্বপূর্ণ মানদণ্ড। ন্যায্য ও সহনশীল সমাজের এসব ভিত্তির বিরুদ্ধে গিয়ে কোনো ব্যক্তির প্রতি আঘাত মানে আমাদের সবার প্রতি আঘাত।’

ভাস্কর অ্যান্থোনি গোর্মলি বলেন, ‘শহিদুল একজন শিল্পী এবং সময়ের একজন সাক্ষী হিসেবে দেশে ইতিবাচক পরিবর্তনের জন্য ক্ষমতাসীনদের সত্য দিয়ে মোকাবিলা করতে চেয়েছেন। তাঁর প্রতি আমার পূর্ণ সমর্থন আছে।’

গতকাল বিকেলে সোফিয়া টেলিফোনে প্রথম আলোকে বলেন, শহিদুল আলমের মুক্তির দাবিতে ব্রিটিশ শিল্পাঙ্গনের এত বিপুল বিশিষ্টজনের সমর্থন অত্যন্ত সম্মানের। তিনি বলেন, মুক্তি দাবিকারী বিশিষ্টজনদের অনেকেই ব্যক্তিগত বার্তা পাঠিয়ে শহিদুল আলমের বলিষ্ঠ ও ইতিবাচক কাজের পক্ষে অবস্থান জানিয়েছেন।

সোফিয়া বলেন, আজ সোমবার শহিদুল আলমের জামিনের জন্য শুনানি হওয়ার কথা। আজই শহিদুল আলম মুক্তি পাবেন বলে তাঁদের বিশ্বাস।

এর আগে বিখ্যাত কলামিস্ট নোয়াম চমস্কি, আর্চবিশপ ডেসমন্ড টুটু, হলিউড অভিনেত্রী ও মানবাধিকারকর্মী শ্যারন স্টোনসহ প্রখ্যাত বিশ্বব্যক্তিত্বরা বাংলাদেশের গুণী এই আলোকচিত্রীর মুক্তি দাবি করেছেন, যাঁদের মধ্যে আছেন ১১ জন নোবেল বিজয়ী।

যুক্তরাজ্য সংসদে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তিন এমপি—রুশনারা আলী, রূপা হক ও টিউলিপ সিদ্দিকও শহিদুল আলমের দ্রুত মুক্তির দাবিতে বিবৃতি দিয়েছেন।

ব্লগার Rajib Khan এর অন্যান্য পোস্টঃ
আপনার পছন্দের তালিকায় আরও থাকতে পারেঃ
0 মন্তব্য
আপনার মতামত দিন
বাংলা বর্ণমালার বর্ণ কোনটিঃ
Hit enter to search or ESC to close
হ্যালো, আমার নাম

Rajib Khan