দিনাজপুরনিউজ২৪ ডটকমের ব্লগসাইটে আপনাকে স্বাগতম!

প্রকাশঃ ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

ছাত্রদলের ফজলু ও শ্যামলের কার্যক্রমের উপর আদালতের নিষেধাজ্ঞা।

জাতীয়তাবাদী বিএনপির ছাত্র সংগঠন ছাত্রদলের নতুন কমিটির সব কার্যক্রমের ওপর অন্তবর্তীকালীন স্থগিতাদেশ দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি সংগঠনটির নবনির্বাচিত সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল হোসেন শ্যামলকে আগামী সাত দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ঢাকার চতুর্থ সহকারী জজ নুসরাত সাহারা বীথি এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদন করেছিলেন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আমান উল্লাহ। সংশ্লিষ্ট আদালতের সেরেস্তাদার আব্দুর রশিদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, একই আদালতে ছাত্রদলের কাউন্সিল স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছিলেন আমান উল্লাহ। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কাউন্সিলের একদিন আগে, ১২ সেপ্টেম্বর ছাত্রদলের কাউন্সিল অনুষ্ঠানে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দেন একই বিচারক। ১৪ সেপ্টেম্বর ওই কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

আদালতের নিষেধাজ্ঞায় ১৪ সেপ্টেম্বর ছাত্রদলের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়নি। তবে এ নিষেধাজ্ঞার নিষ্পত্তি না করেই গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের বাসায় ওই কাউন্সিল আয়োজন করা হয়।

৫৬৬ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ৫৩৩ জন ওই কাউন্সিলে উপস্থিত ছিলেন। তাদের মধ্যে ৪৮১ জন ভোট দেন। তাদের ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হন মো. ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন মো. ইকবাল হোসেন শ্যামল। এরই মধ্যে ছাত্রদলের নবনির্বাচিত এই কমিটি দায়িত্বও গ্রহণ করেছে। আজ সোমবার নতুন কমিটির সব কার্যক্রমের ওপর অন্তবর্তীকালীন স্থগিতাদেশ দিয়েছেন আদালত।

মাননীয় আদালতের এমন আদেশ দেশের সাধারন জনগনকে ভাবিয়ে তুলেছেন বলে মনে করেন নব নির্বাচিত ছাত্রদলের সভাপতি।এদেশের জনগন এক সময় আদালতের উপরই ভরসা করতেন। এখন বিচার ব্যবস্থার প্রতি জনগনের বিশ্বাস নেই বলে মনে করেন তারা।

শেয়ার করুনঃ
ব্লগার MD.ZIAUR RAHMAN এর অন্যান্য পোস্টঃ
আপনার পছন্দের তালিকায় আরও থাকতে পারেঃ
0 মন্তব্য
আপনার মতামত দিন
বাংলা বর্ণমালার দ্বিতীয় বর্ণ কোনটিঃ
Hit enter to search or ESC to close
হ্যালো, আমার নাম

MD.ZIAUR RAHMAN