দিনাজপুরনিউজ২৪ ডটকমের ব্লগসাইটে আপনাকে স্বাগতম!

শিক্ষা ও প্রযুক্তি

প্রকাশঃ ০৭ জানুয়ারী, ২০২০

শিক্ষা ও প্রযুক্তি

শিশুদের মুখে খাবার তুলে দিলেন গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

আজ মঙ্গলবার গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার নিলফা বয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিশুদের মুখে রান্না করা খাবার তুলে দিয়ে দারিদ্র পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং কর্মসূচির উদ্বোধন করেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন এমপি।

এ সময় তিই বলেন, পর্যায়ক্রমে সারা দেশে স্কুল ফিডিং কর্মসূচির আওতায় রান্না করা খাবার (মিট ডে মিল) চালু করা হবে। ২০১৯ সালের অক্টোবর মাস থেকে দারিদ্র পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং কর্মসূচির আওতায় ১৬টি উপজেলার ৪০০টি বিদ্যালয়ে ৮৫ হাজার ৭০৫ জন শিক্ষার্থীকে পাইলট ভিত্তিতে একদিন অন্তর একদিন রান্না করা খাবার পরিবেশনের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন ১৩তম গ্রেড থেকে ১১তম গ্রেডে উন্নীত করা হয়েছে। প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে উন্নীত করার কাজ চলছে। শিক্ষকদের আমরা সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করেছি। শিক্ষকদেরকেও আরো যত্নবান হয়ে শিশুদের পড়াশোনা করাতে হবে। যাতে তারা ভালো মানুষ হয়ে গড়ে উঠতে পারে। কারণ ২০৪১ সালে এই এক লক্ষ ৪০ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী দেশ চালাবে। তাই তাদেরকে উপযুক্ত করে গড়ে তোলার কাজ শিক্ষকদেরকে নিতে হবে।

তিনি বলেন, বিএনপির আমলে ঝরে পড়ার হার ৫০ শতাংশেরও বেশি ছিলো। আমরা শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি চালু করেছি। উপবৃত্তির টাকা সরাসরি মায়ের মোবাইলে পাঠিয়ে দিচ্ছি। স্কুল ফিডিং কার্যক্রমের মাধ্যমে শিশুদের উচ্চ পুষ্টিমান সমৃদ্ধ বিস্কুট দেওয়া হচ্ছে। তাই আমাদের সরকারের সময় ঝরে পড়ার হার কমে ১৮ শতাংশের নিচে নেমে এসেছে। আর মিড ডে মিল চালু করার মাধ্যমে আমরা ঝরে পড়ার হার শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনার জন্য কাজ করছি।

এছাড়া অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে জাকির হোসেন বলেন, ৭১-এর পরাজিত শক্তি আমাদের ছেলে-মেয়েদের মেধা ধ্বংস করে দিতে জানা-অজানা নানা প্রকার নেশা তুলে দিচ্ছে। তাই আপনারা আপনার ছেলে-মেয়েদের খবর রাখবেন। তারা কোথায় যাচ্ছে, কি করছে।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীতে ওই ১৬টি উপজেলার সকল স্কুলে মিড ডে মিল চালু করা হবে। এর অংশ হিসেবে আজ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ৭৯টি বিদ্যালয়ের মধ্যে ৩৩টি বিদ্যালয়ে মিট ডে মিল চালু করা হলো।

ব্লগার Md. Neamul Hassan Neaz Neaz এর অন্যান্য পোস্টঃ
আপনার পছন্দের তালিকায় আরও থাকতে পারেঃ
0 মন্তব্য
আপনার মতামত দিন
বাংলা বর্ণমালার বর্ণ কোনটিঃ
Hit enter to search or ESC to close
হ্যালো, আমার নাম

Md. Neamul Hassan Neaz Neaz

staff reporter