দিনাজপুরনিউজ২৪ ডটকমের ব্লগসাইটে আপনাকে স্বাগতম!

শিক্ষা ও প্রযুক্তি

প্রকাশঃ ২০ মার্চ, ২০২০

শিক্ষা ও প্রযুক্তি

মোবাইল ফোন জীবাণুমুক্ত করবেন যেভাবে

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে সারা বিশ্বেই আতঙ্ক বিরাজ করছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজারেরও অধিক। তবে করোনাভাইরাসের আগেও পৃথিবীতে আরও বেশ কয়েকটি ভাইরাসের দেখা মিলেছিল। এসব ভাইরাসেও অনেক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। বিভিন্ন ভাইরাসের হাত থেকে নিজেদের রক্ষা করতে মোবাইল ফোনও পরিষ্কার-জীবাণুমুক্ত রাখতে হবে।

আপনার হাতের স্মার্টফোনটিতে বাড়ির টয়লেট সিটে থাকা জীবাণুর চেয়েও ১০ গুণ বেশি জীবাণু আছে এমন তথ্য জানিয়েছেন গবেষকরা। আর এই জীবাণু থেকে হতে পারে বিভিন্ন রোগ। এজন্য আপনার দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত এই বস্তুটি জীবাণুমুক্ত করা জরুরি। 

যা লাগবে

দুটো নরম মসৃণ কাপড়, ক্ষারমুক্ত সাবান, টুথপিক বা কটনবাড ও পানি।

আগে জানতে হবে আপনার ফোনটি কতটা পানিনিরোধক। সেটা বুঝে ঠিক করুন ফোন পরিষ্কারের জন্য কতটা পানি ব্যবহার করা নিরাপদ হবে। সরাসরি পানি ব্যবহার না করে সতর্ক থাকার জন্য ভেজা কাপড় ব্যবহার করতে পারেন।

কোন ফোন কতটা পানিনিরোধক-

১. ছিটানো পানিতেও ভালো থাকে (আইপি ৫৩ রেটিং) : পিক্সেল

২. এক মিটার পানিতে ৩০ মিনিট ভালো থাকে (আইপি ৬৭ রেটিং) : আইফোন ৭, ৭ প্লাস, ৮, ৮ প্লাস, এক্স, এক্সআর; পিক্সেল ২।

৩. দেড় মিটার পানিতে ৩০ মিনিট পর্যন্ত ভালো থাকে (আইপি ৬৮ রেটিং): আইফোন এক্স, এক্স এস, ১১, ১১ প্রো,১১ প্রো ম্যাক্স; গ্যালাক্সি এস৭, এস৭, এস৭ এজ, এস৮, এস৮ +, এস৯, এস৯ +, এস১০, এস১০ +, এস১০ ই, নোট ৮, নোট ১০, নোট ১০ +; পিক্সেল ৩, ৪।

যেভাবে পরিষ্কার করবেন

১) ফোনের সঙ্গে কোনো কেবল লাগানো থাকলে খুলে ফেলে ফোন বন্ধ করুন। খেয়াল রাখবেন ফোনের ও আপনার কারো ক্ষতিই যেন না হয়।

২) হালকা ক্ষারমুক্ত সাবানের সঙ্গে পানি মিশিয়ে নিজের বিবেচনায় সাবান-পানির অনুপাত ঠিক করুন।

৩) এক টুকরা নরম মসৃণ কাপড় সাবান-পানির মিশ্রণে ভিজিয়ে নিন। এরপর কাপড় থেকে অতিরিক্ত পানি ভালোভাবে ঝরিয়ে নিন।

৪) পানি ঝরানো ভেজা কাপড় দিয়ে ফোনের ওপর, নিচ ও পাশের অংশ মুছুন।

৫) ফোন যতই পানিনিরোধক হোক না কেন সরাসরি সাবান-পানির মিশ্রণে ডোবাবেন না।

৬) এবার এক টুকরা শুকনো নরম মসৃণ কাপড় দিয়ে ফোন মুখে নিন।

৭) সিমকার্ড হোল্ডার থেকে সিম খুলে নিন। সেদিকও চাইলে পরিষ্কার করতে পারেন। তবে করতে হবে এমন নয়।

৮) সাবান-পানির মিশ্রণে কটনবাড ডুবিয়ে নিন। আঙুল দিয়ে চেপে অতিরিক্ত পানি ঝরিয়ে নিন।

৯) সিমকার্ড ঢোকানোর ট্রে ও স্থানটি ভেজা কটনবাড দিয়ে সাবধানে পরিষ্কার করুন। প্রয়োজনে টুথপিক দিয়ে সিমকার্ড ঢোকানোর স্থানের ময়লা বের করতে পারেন।

১০) শুকনো কাপড় দিয়ে সিমকার্ড ঢোকানোর ট্রে মুছুন।

১১) এরপর সব আবার জায়গা মতো সেট করে ফোন চালু করুন।

ব্লগার Rokmunur Zaman Rony এর অন্যান্য পোস্টঃ
আপনার পছন্দের তালিকায় আরও থাকতে পারেঃ
0 মন্তব্য
আপনার মতামত দিন
বাংলা বর্ণমালার প্রথম বর্ণ কোনটিঃ
Hit enter to search or ESC to close
হ্যালো, আমার নাম

Rokmunur Zaman Rony